যেসব সুবিধাসমুহ প্রদান করা হবে

  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সংক্রান্ত সকল প্রকার প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।
  • প্রতি মাসে অন্তত দুইবার নির্দিষ্ট দিনে আইটি ল্যাব সলিউশন্স এর প্রতিনিধি স্বশরীরে প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে,

১।   প্রতিষ্ঠানের কাজে ব্যাবহৃত সকল ডেস্কটপ,লেপটপ, প্রিন্টার ইত্যাদি চেক করে কোন ত্রুটি পেলে এর ফ্রি-সার্ভিস করবেন।

২।  আইটি ল্যাব সলিউশন্স কর্তৃক প্রদানকৃত স্কুল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর সকল ধরনের সেবা প্রদান করবেন।

  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেবা নিশ্চিত করা হবে। সমস্যা জানা মাত্র আমাদের সার্ভিস টিম দুরনিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থায় অথবা স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে সেবা প্রদান করবে।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারের ডাটা ব্যাকআপ ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।
  • সরকার কর্তৃক গৃহীত বা সামগ্রিকভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া স্কুল ব্যবস্থাপনায় কোন সংযোজন, পরিবর্তন ও পরিবর্ধন আইটি ল্যাব সলিউশন্স প্রদান করবে।
  • যে সকল প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট নাই, সে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত স্বারক নং ২০৯২৪/১০ জিএ, ৩০শে এপ্রিল ২০১৫ অনুযায়ী ডায়নামিক ওয়েবসাইট ফ্রি তৈরী করে দেয়া হবে।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট এবং পাঠশালা সফটওয়ারের জন্য প্রয়োজনীয় ডোমেইন এবং হোস্টিং এর বাৎসরিক ফি আইটি ল্যাব সলিউশন্স লিঃ এর পক্ষ থেকে সঠিক সময়ে প্রদান করা হবে।
  • প্রতি মাসে শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য তথ্য প্রযুক্তির সুষ্ঠু ব্যাবহার সম্পর্কে সেমিনার এর আয়োজন করা হবে।
  • পাঠশালা প্রকল্পের সাথে চুক্তিবদ্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সকল অভিভাবক ও শিক্ষার্থীবৃন্দের জন্য থাকবে শিক্ষার্থীর আইডি কার্ড প্রদর্শন করে ৩০% ছাড়ে আইটি ল্যাব সলিউশন্স লিঃ এর সার্ভিস সেন্টার থেকে সার্ভিস করানোর সুযোগ।
  • পাঠশালা প্রকল্পের সাথে চুক্তিবদ্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সব সদস্য ও শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দদের জন্য থাকছে তাদের নিজস্ব কম্পিউটার আইটি ল্যাব সলিউশন্স লিঃ এর সার্ভিস সেন্টার থেকে ৫০% ছাড়ে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সার্ভিস করানোর সুযোগ।
  • পাঠশালা সফটওয়্যারে শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থীসহ প্রতিষ্ঠানের সকল প্রকার প্রারম্ভিক ডাটা এন্টির কাজ শর্ত সাপেক্ষ্যে আইটি ল্যাব সলিউশন্স লিঃ কর্তৃক ফ্রি করা হবে।

 

ব্যাতিক্রমসমুহঃ

  • আইটি ল্যাব সলিউশন্স লিঃ কর্তৃক প্রদানকৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারের ডাটা এন্ট্রি সার্ভিসের অন্তর্ভুক্ত নয়। এর জন্য আলোচনা সাপেক্ষে আলাদাভাবে চার্জ প্রদান করতে হবে।
  • কোন ধরনের প্রিন্টিং, প্যাকেজিং এই চার্জের সাথে অন্তর্ভূক্ত নয়। প্রিন্টিং এর জন্য আলোচনা সাপেক্ষে আলাদাভাবে চার্জ প্রদান করতে হবে।
  • প্রতিষ্ঠানে ব্যবহৃত ডেস্কটপ, লেপটপ, প্রিন্টার, ইউপিএস তথা কম্পিউটার এক্সেসরিজ ব্যতিত অন্য কোন ডিভাইস এই সার্ভিসের অন্তর্ভুক্ত নয়।
  • এই চুক্তিপত্রটি সম্পুর্ন সার্ভিসের সাথে সম্পর্কিত। এর সাথে প্রয়োজনীয় কোন ধরনের খুচরা যন্ত্রাংশের দাম অন্তর্ভুক্ত নয়।
  • শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীর ডিজিটাল ছবি তোলা এই সার্ভিসের অন্তর্ভুক্ত নয়। এর জন্য আলোচনা সাপেক্ষে আলাদাভাবে চার্জ প্রদান করতে হবে।

“পাঠশালা” সফটওয়্যার ও প্রস্তাবিত সার্ভিস থেকে কি কি ভাবে প্রতিষ্ঠান উপকৃত হবে ও সুবিধা ভোগ করবে তা সংক্ষেপে উল্লেখ করা হলো

  • সকল ক্ষেত্রে ৭০-৮০% সময় সাশ্রয় হবে।
  • এটেন্ডেন্স পদ্ধতিঃ
  • মেশিন রিডেবল কার্ডের মাধ্যমে।
  • বায়োমেট্রিক সিস্টে্মের মাধ্যমে।
  • মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে।
  • সরাসরি কম্পিউটারে এন্ট্রির মাধ্যমে।
  • যেসব ছাত্রছাত্রী ক্লাসে অনুপস্থিত থাকবে তাদের অভিভাবকের নিকট ক্লাসে রোল-কল করার কিছু সময়ের মধ্যে সয়ংক্রিয়ভাবে SMS চলে যাবে যে- শিক্ষার্থী আজ বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত। ফলে অভিবাবকগন আরো সচেতন হবেন এবং বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি বৃদ্ধি পাবে।
  • পাঠশালা সফটওয়্যারের মাধ্যমে উপস্থিতি, নোটিশ, বিভিন্ন সভা, পরীক্ষার ফলাফল ইত্যাদি বিষয়েও SMS পাঠানোর সুবিধা।
  • শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীদের অটো জেনারেট এটেন্ডেন্স তালিকা এক ক্লিকের মাধ্যমে দেখা ও প্রিন্ট করার সুবিধা থাকবে।
  • উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য শিক্ষার্থীর উপস্থিতির হার সয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারনের সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীদের ছবিসহ বিস্তারিত তথ্যের তালিকা দেখা ও প্রিন্টের সুবিধা।
  • eSIF - Electronic Student Information Form জন্য শিক্ষার্থীর নির্ধারিত মাপের ছবি ও প্রয়োজনীয় নির্ভূল সকল তথ্য এক স্থানে পাওয়ার সুবিধা। যা থেকে প্রয়োজনীয় নির্ভূল তথ্য কপি করে eSIF এর নির্দৃষ্ট স্থানে পেস্ট করা এবং ছবি আপলোডের সুবিধা।
  • পাঠশালা সফটওয়্যারে নিদৃষ্ট এন্ট্রি ফরমে শুধুমাত্র ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর বসানো মাত্র সয়ংক্রিয়ভাবে ফলাফল প্রকাশের সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে টেবুলেশন, মেরিটলিস্ট ও ট্রান্সক্রিপ্ট প্রিন্টের সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে শিক্ষার্থীদের পরবর্তি ক্লাসে প্রমোশনের সুবিধা।
  • প্রতিষ্ঠানের সকল শাখার (শাখা যদি থাকে) হিসাব-নিকাশ, লাইব্রেরী, ছাত্রছাত্রীদের প্রত্যহিক উপস্থিতি, হোস্টেল, পরিবহন ইত্যাদি পাঠশালা সফটওয়্যারের মাধ্যমে সহজ ও নির্ভুলভাবে ব্যবস্থাপনার সুবিধা।
  • কলামনার ফরমেটে প্রতিষ্ঠানের হিসাব-নিকাশের সুবিধা।
  • এক বা একাধিক শিক্ষার্থীর বেতন/ফি এক সময়ে নেয়ার সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে সাধারন আইডি কার্ড প্রিন্টের সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে প্রত্যয়ন পত্র এবং টি.সি প্রিন্ট ও এর রেকর্ড সংরক্ষনের সুবিধা।
  • সয়ংক্রিয়ভাবে প্রবেশ পত্র, সিট প্লান প্রিন্টের সুবিধা।
  • সম্মনিত শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ও শিক্ষার্থীদের সেমিনারের মাধ্যমে আইসিটি বিষয়ে দক্ষ করা হবে। ফলে দক্ষ আইসিটি জনবল তৈরীর সুবিধা।
  • পাঠশালা সফটওয়্যারটি অনলাইনে যেকোন স্থান থেকে একাধিক ব্যবহারকারী নিজেদের ইউজার পাসওয়ার্ড দিয়ে একসাথে ব্যবহারের সুবিধা।
  • সল্প সময়ের মধ্যে প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইটে পরীক্ষার ফলাফলসহ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত অন্যান্য তথ্যাবলী সয়ংক্রিয়ভাবে প্রকাশের সুবিধা।
  • পাঠশালা সফটওয়্যার ব্যবহারের ফলে প্রতিষ্ঠানের সকল কাজে সচ্ছতা ও গতিশীলতা আসবে, এর ফলে প্রতিষ্ঠানের সুনাম আরো বৃদ্ধি পাবে।